ফ্রি Vs প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম : আপনার নেক্সট ওয়েবসাইটের জন্য কোনটি বেস্ট হবে?

ফ্রি Vs প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম : আপনার নেক্সট ওয়েবসাইটের জন্য কোনটি বেস্ট হবে?

আমি মূলত প্রায়ই ওয়ার্ডপ্রেসে বিগেনারদের ফ্রি থিম ইউজ করবে নাকি প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম ইউজ করবে এই নিয়ে প্রশ্ন করতে দেখি। আসলে ওয়ার্ডপ্রেস কমিউনিটিতে এতোবেশি আর অসাধারণ সকল ফ্রি থিম রয়েছে যে অনেক সময় প্রিমিয়াম থিমের প্রয়োজনীয়তা লোপ পেয়ে যায়। তবে ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম বা প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম, উভয়েরই কিন্তু কিছু সুবিধা ও অসুবিধা রয়েছে। আজকের এই আর্টিকেল থেকে ফ্রি ও প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিমের সুবিধা ও অসুবিধা গুলো সম্পর্কে জানতে পারবেন, সাথে আপনার নেক্সট প্রজেক্টে ফ্রি নাকি প্রিমিয়াম থিম ইউজ করবেন সে ব্যাপারেও ভালো ধারণা অর্জন করতে পারবেন।

সূচনাতেই কিছু জিনিষ পরিষ্কার করতে চাই, কেনোনা ব্যাপারটা একদিক থেকে সহজ মনে হলেও ততোটাও সহজ না। অনেকেই রয়েছেন যারা ফ্রি থিম বা প্রিমিয়াম থিম নিয়ে কোন মাথা ব্যাথার প্রকাশ করেন না। অনেকের মতে ফ্রিতেই এতো ভালো থিম পাওয়া যেতে কেন টাকা খরচ করে থিম কেনা? আবার অনেকে প্রিমিয়াম ফিল করানোর জন্য বা বেটার ওয়েবসাইট ডিজাইন এর লক্ষে প্রিমিয়াম থিম ইউজ করেন। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, সত্যিই কি ওয়েবসাইটের বেটার লুক দেওয়ার জন্য সর্বদা প্রিমিয়াম থিম প্রয়োজনীয়? প্রিমিয়াম থিম মানেই কি আপনার ওয়েবসাইট ফাস্ট কাজ করবে? ফ্রি থিমের অসুবিধা গুলো কোথায়? — এই সকল প্রশ্নের উত্তর গুলো জানা প্রয়োজনীয়!


ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম : সুবিধা গুলো

আমার মতে ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম চয়েজ করার আসল সুবিধাটি হচ্ছে, আপনি অফিশিয়াল ওয়ার্ডপ্রেস ডিরেক্টরি থেকে থিম ডাউনলোড করার সুবিধা পাচ্ছেন। এখানে থিম গুলো ওয়ার্ডপ্রেস দ্বারা অফিশিয়ালভাবে অ্যাপ্রুভ করানো হয়। ব্যাপারটা অনেকটা অ্যান্ড্রয়েডের গুগল প্লে স্টোরের মতো, প্লে স্টোর থেকে যেমন অ্যাপ ডাউনলোড করতে কোন ম্যালওয়্যার ছড়ানোর ভয় থাকে না, ঠিক তেমনি ওয়ার্ডপ্রেস অফিশিয়াল ডিরেক্টরি থেকে কিছু ডাউনলোড করা সেটা অত্যন্ত নিরাপদ।

ওয়ার্ডপ্রেস অফিশিয়াল ডিরেক্টরিতে যখন কোন ডেভেলপার থিম সাবমিট করে সেখানে থিম রিভিউ প্রসেস অনেক শক্ত করে দেখা হয়। ওয়ার্ডপ্রেসের সকল রুলস এবং ল্যাঙ্গুয়েজ অনুসরণ করলে কেবল তখনই অ্যাপ্রুভাল পাওয়া সম্ভব হয়।

আপনি যদি নতুন ওয়েবসাইট তৈরি করেন বা এখনই অনেক বেশি বাজেট নেই ওয়েবসাইটের জন্য, সেক্ষেত্রে ফ্রি থিম আপনার জন্য আদর্শ হতে পারে। প্রিমিয়াম থিমের জন্য অবশ্যই আপনাকে পে করতে হয়, আর ওয়ার্ডপ্রেসের প্রিমিয়াম মার্কেট প্লেস ঘুরলে দেখা যায় এভারেজ প্রিমিয়াম থিমের দাম কিন্তু ৫০$ এর উপরে বা পাশাপাশি। আবার অনেক থিম বিক্রেতা রয়েছে যারা থিম সেল করার পরে রিফান্ড প্রদান করে না, এর মানে কোন থিম যদি কেনার পরে সেটা প্লাগইন এর সাথে ঠিকঠাক কাজ না করে আপনার থিমটি ইউজ করতে পারবেন না! টাকাটা শুধু পানিতে যাবে।

ফ্রি থিমে যেহেতু অনেক প্রিমিয়াম প্লাগিন আর উইজেট সাপোর্ট থাকে না, তাই ফ্রি থিম গুলো সাধারনত লাইট ওয়েট এবং ফাস্ট হয়ে থাকে। ফ্রি থিম গুলো বিশেষ করে বিগেনারদের কথা চিন্তা করে তৈরি করা হয়, ফলে ফ্রি থিম কাস্টমাইজ করা এবং ইউজ করা অনেক সহজ হয়ে থাকে। আমি এই পর্যন্ত যতো ফ্রি থিম ইউজ করেছি, সেগুলো প্রায় সবই প্লাগইনের সাথে ভালোভাবেই কাজ করতে পারে।

আপনি ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস ডিরেক্টোরির পাশাপাশি Just Free Themes এবং MH Themes ইউজ করে দেখতে পারেন, কেনোনা এদের ও অনেক বড় ডিরেক্টোরি রয়েছে।

কোম্পানিরা কেন ফ্রি থিম তৈরি করে?

ওয়ার্ডপ্রেস থিম তৈরি করা কিন্তু কোন রেডিমেড জিনিষ নয়, ডেভেলপারদের অনেক কষ্ট করে এবং অক্লান্ত পরিশ্রম ব্যয় করে কোন থিম ডেভেলপ করতে হয়, তাহলে তারা কেনই বা ফ্রিতে থিম তৈরি করে?

ফ্রি থিম অফার করার পেছনে একজন ডেভেলপারের অনেক স্বার্থ থাকতে পারে। হতে পারে ডেভেলপার তার স্কিলকে আরো বাড়াতে চায়, যখন কেউ ফ্রি থিম তৈরি করে ওয়ার্ডপ্রেস ডিরেক্টরিতে সাবমিট করে সেখানের রিভিউ প্রসেসে অনেক সাজেশন প্রদান করা হয়, এতে থিম ডেভেলপার নতুন কিছু শিখতে পারে। তাছাড়া ওয়ার্ডপ্রেস ডিরেক্টোরিতে থিমটি পাবলিশ হয়ে গেলে অনেক বড় পরিমাণে অডিয়েন্স এর কাছে পৌঁছানো সম্ভব হয়, এতে অনেক ইউজার ফিডব্যাক কালেক্ট করা যেতে পারে যেগুলোকে ডেভেলপার ফিউচার থিম ডেভেলপ করার কাজে ইউজ করতে পারে।

অনেক কোম্পানি ফ্রি থিম তৈরি করে পাবলিসিটি অর্জন করার জন্য। অনেকে নিজেদের পোর্টফোলিও শক্ত করার জন্য ও ফ্রি থিম অফার করে থাকে। কোন থিমের ফ্রি ভার্সন ইউজ করতে দিয়ে পছন্দ হলে সেটার প্রিমিয়াম ভার্সন ও কিনবে এই উদ্দেশ্যে ও ফ্রি থিম অফার করা হয়ে থাকে। তো বুঝতেই পারছেন, ফ্রি থিমের পেছনে অনেক কারণ থাকতে পারে! তবে কারণ যেটাই হোক না কেন ফ্রি থিম আপনার বা আমার জন্যই ভালো!

আর হ্যাঁ, ফ্রি থিম বলতে কিন্তু ন্যাল্ড বা ক্র্যাকড থিমের কথা বলিনি, আর আমরা সেগুলো থিম ইউজ করতে রেকোমেন্ড ও করবো না!

ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম : অসুবিধা গুলো

একদিক থেকে দেখতে গেলে দুনিয়ার কিছুই সম্পূর্ণ ফ্রি নয়, ফ্রি জিনিষ ও কোন না কোন ভাবে আপনাকে চার্জ করে। যাই হোক, যেহেতু এখানে ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিমের কথা বলছি, তাই কিছু লিমিটেশন তো রয়েছেই!

  • একটি প্রফেশনাল ওয়েবসাইট রান করতে যতো প্রিমিয়াম ফিচার গুলোর প্রয়োজন রয়েছে, ফ্রি থিমে সেগুলোর ব্যাপক অভাব রয়েছে।
  • যখন আপনি বিজনেস ওয়েবসাইট রান করবেন, সেক্ষেত্রে সাপোর্ট প্রয়োজনীয় হবে, ফ্রি থিমের সাপোর্ট অত্যন্ত লিমিটেড, হ্যাঁ ফোরামের মাধ্যমে ফ্রি থিমে সাপোর্ট প্রদান করা হয় কিন্তু সেটা মোটেও ডেডিকেটেড নয়। তবে অনেক জনপ্রিয় ফ্রি থিম ইউজ করলে অন্যের তুলনায় একটু বেটার সাপোর্ট পেতে পারেন।
  • জনপ্রিয় ফ্রি থিম ইউজ করার অনেক সুবিধা রয়েছে, কিন্তু বড় অসুবিধাটি হচ্ছে যেহেতু ফ্রি থিম ডাউনলোড করতে টাকা লাগে না, তাই সকলেই ডাউনলোড করতে পারে। আর জনপ্রিয় থিম ইউজ করলে আপনার ওয়েবসাইট আরো ১০ লাখ ওয়েবসাইটের মতোই দেখতে লাগবে, ইউনিক আর আনকমন ডিজাইন পেতে পেইড থিম প্রয়োজনীয় হতে পারে।
  • ফ্রি থিমে ও নিয়মিত আপডেট আসে, কিন্তু থিমের ডিজাইনে বা ফিচারে অনেক কম আপডেট পেতে দেখতে পাওয়া যায়।
  • সকল ফ্রি থিম কিন্তু সমান নয়, অনেক ফ্রি থিমে অনেক কিছুই পাওয়া যায় আবার আরেক ফ্রি থিমে হয়তো শুধু হতাশায় লুকিয়ে থাকে।

প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম : সুবিধা গুলো

প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম ইন্টারনেটের নানান ত্রিতিয়পক্ষ থিমশপ এবং থিম মার্কেটপ্লেসে কিনতে পাওয়া যায়। প্রিমিয়াম থিমের সবচাইতে সুবিধার ব্যাপার হচ্ছে, এর মানের পূর্বে “প্রিমিয়াম” যুক্ত করা থাকে — আর আপনি পেয়ে যান আরো প্রিমিয়াম ফিচার, আরো কাস্টমাইজেশন করার সুবিধা, ইউনিক লুক, অনেক টাইপের প্রি ইন্সটল থাকা ডিজাইন, সাথে আরো কিছু!

যেহেতু ওয়ার্ডপ্রেসের প্রিমিয়াম থিমের মার্কেটপ্লেস অনেক হিউজ, তাই ডেভেলপাররা কম দামের মধ্যেই অনেক বেশি ফিচার ইঙ্কলুড করার চেষ্টা করে। এখনকার প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম গুলোতে ড্রাগ অ্যান্ড ড্রপ ভিজুয়াল বিল্ডার, শর্টকোডস, অনেক লে-আউট ও ট্যামপ্লেট, এবং আনলিমিটেড কালার চয়েজ অপশন রেখে দেয়।

প্রিমিয়াম থিমে রেগুলার আপডেট প্রদান করা হয়, ফিচার আপডেট থেকে শুরু করে বাগ ফিক্সিং, লে আউট আপডেট, সকল প্রকারের আপডেট প্রদান করা হয়। সাথে প্রিমিয়াম থিমের সাথে ডেডিকেটেড সাপোর্ট যুক্ত থাকে। যেহেতু কোম্পানি সরাসরি থিম সেল করে বিজনেস করছে, তাই প্রিমিয়াম থিমের সাথে সকল প্রকারের সুবিধা যুক্ত করার সেন্স তৈরি করে।

প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম : অসুবিধা সমূহ

প্রিমিয়াম থিম মানেই যে শুধু সুবিধা হবে অসুবিধা কিছুই থাকবে না এমনটা কিন্তু নয়। প্রত্যেকটি প্রিমিয়াম থিম কিন্তু সমানভাবে তৈরি করা হয় না। অনেক গরিব কোডে তৈরি করা প্রিমিয়াম থিম ফ্রি থিমের থেকে বেশি অসুবিধা তৈরি করতে পারে। তো প্রিমিয়াম থিমের ও কিছু কমন সমস্যা রয়েছে যেগুলো অসুবিধা তৈরি করতে পারে;

  • অনেক সময় টাকা খরচ করে প্রিমিয়াম থিম তো কিনলেন, কিন্তু থিমের কোড পুওর হওয়ার কারণে অনেক প্লাগইনের সাথে থিমটি ভালোভাবে না কাজ করতে পারে, বা ভালো স্পিড ও না পেতে পারেন থিম থেকে।
  • অনেক থিমে দেখা যায় ডেভেলপার থিম সেল বাড়ানোর জন্য অনেক বেশি থিম ফিচার একসাথে যুক্ত করে দেয় সেগুলোর দরকারই নেই। বেশি ফিচার থাকা ভালো, কিন্তু অপ্রয়োজনীয় ফিচার গুলো আপনার ওয়েবসাইট স্লো তৈরি করতে পারে।
  • অনেক সময় প্রিমিয়াম থিমে এমন কিছু ফিচার যুক্ত করা থাকে যেগুলো আলাদা কোন থিমে সুইচ করলে আর পূর্বের ফিচার গুলো কাজ করবে না। যেমন- কাস্টম পোস্ট টাইপ, শর্টকোড, ইত্যাদি, এগুলো এক থিম থেকে আরেক থিমে সুইচ করলে ফাংশন গুলো আর কাজ করে না।

প্রিমিয়াম থিমের সেরা সোর্স সমূহ

আপনি কি প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম কিনতে চাচ্ছেন, কিন্তু কিভাবে বা কোথা থেকে কিনবেন বুঝতে পারছেন না? নিচে কিছু বেস্ট প্রিমিয়াম থিমের সোর্স উল্লেখ্য করলাম;

ফ্রি Vs প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম

উপরের প্যারাগ্রাফ গুলো থেকে নিশ্চিত এটুকু অন্তত জানলেন, ফ্রি এবং প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিমের আপন আপন সুবিধা ও অসুবিধা রয়েছে। আপনি কোন থিমটি ইউজ করবেন সেটা নির্ভর করে আপনার ওয়েবসাইটের টাইপ, আপনার সাইট তৈরি করার পেছনের বাজেট, এবং কি রকমের ডিজাইন চান তার উপরে। হ্যাঁ, আপনি শুরুতে ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম দিয়েই আপনার ওয়েবসাইট শুরু করতে পারেন। আর সময়ের সাথে সাথে প্রিমিয়াম থিমে সুইচ করতে পারেন।

এখনো ফ্রি Vs প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম নিয়ে মনে প্রশ্ন রয়েছে? — আমাদের নিচে কমেন্ট করে জানাতে পারেন!


এই আর্টিকেলটি ভালো লেগেছে? তাহলে আমাদের এক্সেলনোড ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং প্যাকের ও আপনি প্রেমে পরতে বাধ্য! আমাদের ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং সাধারণ হোস্টিং থেকে ১০ গুন বেশি ফাস্ট! সাথে আমাদের ২৪/৭ সাপোর্ট তো থাকছেই! সেরা বাংলা ব্লগে প্রকাশিত আমাদের সম্পূর্ণ রিভিউটি এখানে পড়তে পারেন এবং এখান থেকে আমাদের হোস্টিং প্ল্যান চেক করতে পারেন!

এক্সেলনোড প্রো টিপস গুলো ইনবক্সে পেতে ভুলবেন না!

About the Author: ExelNode

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রিমিয়াম ওয়েব হোস্টিং জিতুন ফ্রিতে!

প্রিমিয়াম ওয়েব হোস্টিং জিতুন ফ্রিতে!

আপনার ইমেইল অ্যাড্রেস প্রবেশ করিয়ে ১ বছর পর্যন্ত ফ্রি ওয়েব হোস্টিং জিতে নিন!

আপনি সফলভাবে সাবস্ক্রাইব করেছেন!