ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট : সঠিকভাবে ওয়েবসাইট স্পিড পরীক্ষার পদ্ধতি! [যেগুলো আপনি ভুল করেন!]

ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট : সঠিকভাবে ওয়েবসাইট স্পিড পরীক্ষার পদ্ধতি!

যখন কথা বলবেন ওয়ার্ডপ্রেস সাইট নিয়ে, হ্যাঁ অবশ্যই ওয়েবসাইট স্পিড গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। প্রধানত দুইটি কারণে ফাস্ট ওয়েবসাইট স্পিড অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। প্রথমত, গুগল দ্রুত লোড হওয়া সাইট গুলোকে রাঙ্কিং এর ক্ষেত্রে গ্রিন সিগন্যাল প্রদান করে এবং দ্বিতীয়ত ফাস্ট লোডিং সাইট বেস্ট ইউজার এক্সপেরিয়েন্স প্রদান করতে সক্ষম।

আপনার ওয়েবসাইট ফাস্ট লোড হবে মানে ভিজিটর সাইটের সাথে দ্রুত যুক্ত হতে পারবে, কন্টেন্ট পড়া শুরু করতে পারবে অথবা আপনার সাইটের ভিজিটর আপনার একজন কাস্টমারে পরিণত হয়ে যাবে। এক কথায় বলতে গেলে আলো গতিতে লোড হওয়া ওয়েবসাইট গুলো সকল প্রকারের সুবিধা অর্জন করতে সক্ষম হয়। আর একজন ওয়েব মাস্টার হিসেবে আপনাকে ক্রেজি ফাস্ট লোডিং ওয়েবসাইট তৈরি করতেই হবে!

যাইহোক, আজকের আর্টিকেলে আপনার ওয়েবসাইট কিভাবে ফাস্ট লোডিং করবেন সে ব্যাপারে আলোচনা করবো না। এই ব্যাপারে দ্রুতই একটি পোস্ট এক্সেলনোড ব্লগে পেয়ে যাবেন। কিন্তু আজকে আলোচনা করবো আরেকটি কমন সমস্যা নিয়ে, সেটা হচ্ছে আপনার ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট করা, যেটা অনেকেই ভুলভাবে সম্পূর্ণ করে থাকে।

অনেকের কাছে এটা কোন সমস্যা নয়, কিন্তু চিন্তা করে দেখুন আপনি যে ওয়েবসাইটটিকে ফাস্ট করার জন্য আদা জ্বল খেয়ে লেগে পড়ছেন সেই ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট ই যদি ভুলভাবে নেওয়া হয় সেক্ষেত্রে আপনি ভুল দিকে চলে যেতে পারেন। আপনার সাইট স্পিড টেস্ট রেজাল্টে স্লো দেখাবে অথচ প্রকৃতপক্ষে আপনার সাইট কিন্তু ফাস্ট!

তো, আজকে আলোচনা করবো, কিভাবে সঠিক পন্থা অনুসরণ করে আপনার ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট করাবেন… আমি কিছু টুলের সাথে পরিচয় করিয়ে দেবো এবং সঠিক পন্থা গুলো আলোচনা করবো।


ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট রান করার পূর্বে!

ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট শুরু করার পূর্বে আপনাকে দুইটি জিনিষ মাথায় রাখতে হবে। বিশেষ করে ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের ক্ষেত্রে এই দুইটি ব্যাপার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ!

  • ক্যাশিং
  • কন্টেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্ক ব্যাবহার করা

এখন অনেকেই হয়তো ক্যাশিং বা কন্টেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্ক সম্পর্কে কোন আইডিয়াই রাখেন না। সমস্যা নেই, আপনি নতুন হতে পারেন, সেক্ষেত্রে আপনার ওয়েব হোস্টিং প্রভাইডারের সাথে কথা বলুন। যেমন- এক্সেলনোড (ExelNode) হোস্টিং আপনাকে ২৪/৭ সাপোর্ট প্রদান করবে। আপনি ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং প্যাক কিনলে আপনাকে ফ্রিতে সাইটে ক্যাশ কনফিগার করে দেবে!

তো সাইটের স্পিড টেস্ট গ্রহণ করার পূর্বে অবশ্যই আপনাকে এই দুইটি জিনিষ প্রোপার অ্যাক্টিভ করে নিতে হবে।

ক্যাশিং কনফিগ করুন

আপনি যদি এক্সেলনোড হোস্টিং এর কাস্টমার হয়ে থাকেন, আমাদের সার্ভার লেভেল ক্যাশিং সিস্টেম অলরেডি এনাবল করা রয়েছে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের জন্য। তাছাড়া আমাদের শেয়ারড হোস্টিং প্ল্যানম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং প্ল্যানে লাইট স্পিড ক্যাশিং সুবিধা রয়েছে। এতে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইট পাগলের মতো দ্রুত পারফর্ম করবে। তবে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইট থেকে আপনাকে ক্যাশিং এনাবল করে নিতে হবে সাথে কনফিগারেশন করে নিতে হবে। ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেসের ক্ষেত্রে আমরা নিজেরায় ক্যাশ কনফিগ করে থাকি।

আপনার হোস্টিং যদি অন্য কোথাও হয়, সেক্ষেত্রে তাদের সাথে কনট্যাক্ট করুন এবং ক্যাশিং এনাবল করে নিন। বেস্ট পারফর্মেন্স এর জন্য আপনাকে সার্ভার লেভেল ও অ্যাপ্লিকেশন লেভেল উভয় থেকেই ক্যাশ এনাবল করতে হবে।

কন্টেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্ক ইউজ করুন

আপনি যদি না জানেন কন্টেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্ক কি জিনিষ, তো চলুন প্রথমে সেটা নিয়েই আলোচনা করা যাক… আপনি যে সাইট গুলো ইন্টারনেটের মাধ্যমে ভিজিট করেন সেগুলো কিন্তু ফিজিক্যালি পৃথিবীর কোন কোন না কোন ওয়েব সার্ভারে স্টোর থাকে।

ওয়েব সার্ভার গুলো আপনার কম্পিউটারের মতোই কম্পিউটার হয় আর সেখানে বিশেষ সফটওয়্যার ইন্সটল করা থাকে। এখন ইন্টারনেট ব্যবহার করে ঐ সার্ভার থেকে কোন পেজ আপনার কম্পিউটারে ডাউনলোড কিভাবে হয়?—কেনোনা ইন্টারনেটে সকল সার্ভার আর ক্লায়েন্ট কম্পিউটার গুলো একই কানেকশন সূত্রে বাঁধা থাকে।

এখন ধরুন, আপনার নিজের একটি ওয়েবসাইট রয়েছে; এখন আপনি নিশ্চয় সেটাকে আপনার কম্পিউটারে হোস্ট করে রাখেন নি, অবশ্যই আপনি কোন ওয়েব হোস্টিং কোম্পানি থেকে সার্ভার ভাড়াতে নিয়ে সেখানে আপনার সাইটটি হোস্ট করেছেন। এখন আপনার ওয়েব সাইটের সার্ভার লোকেশন পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তে হতে পারে, আচ্ছা চলুন ধরা যাক, আপনার ওয়েবসাইটের ফিজিক্যাল সার্ভার লোকেশন অ্যামেরিকাতে।

অর্থাৎ, যখন কোন ভিজিটর আপনার সাইটের জন্য ব্রাউজারে রিকোয়েস্ট করে, তখন অ্যামেরিকা থেকে আপনার সাইটের পেজ ইথারনেট ক্যাবল বা ফাইবার অপটিক ক্যাবল বা স্যাটেলাইটের মাধ্যমে আলোর গতিতে ভ্রমন করে ভিজিটরের কম্পিউটার পর্যন্ত এসে পৌছায়।

যদিও আলোর গতি (১৮৬,০০০ মাইল/সেকেন্ড) অনেক বেশি কিন্তু সেটা তারপরেও লিমিটেড একটি গতি। বিজ্ঞানের অনুসারে কখনোই কোন সিগন্যাল বা কমিউনিকেশন সিস্টেম আলো চেয়ে অধিক গতিতে ভ্রমন করতে পারে না। আর যদি গতি লিমিটেড হয়, এর মানে ভিজিটর কম্পিউটার থেকে সার্ভার কম্পিউটার যতো দূরে হবে, পেজটি ইন্টারনেটে ভ্রমন করে এসে পৌছাতে ততোবেশি সময় লাগবে! এখন আপনার ওয়েব সার্ভার যেহেতু অ্যামেরিকাতে অবস্থিত, তো অবশ্যই অ্যামেরিকাতে আপনার সাইট দ্রুত লোড হবে, কিন্তু এশিয়া থেকে আপনার সাইট স্লো লোড হবে।

কেনোনা এশিয়া পর্যন্ত আপনার সাইটের পেজ ভ্রমন করে আসতে অনেক সমুদ্র পার হতে হয়, সাথে অনেক টাইপের কানেকশনের মধ্য হয়ে তবেই আপনার পর্যন্ত পৌছাতে পারে। এখন হতে পারে আপনার সাইট অ্যামেরিকাতে রয়েছে, কিন্তু আপনি যদি বাংলা সাইট তৈরি করেন বা এশিয়াকে টার্গেট করে কোন সাইট তৈরি করেন, সেখানে অবশ্যই এশিয়ান ভিজিটর বেশি থাকবে। এক্ষেত্রে অবশ্যই ফাস্ট পেজ লোড প্রদান করতে আপনাকে এশিয়ান কোন সার্ভারে সাইট হোস্ট করা বেস্ট হবে।

কিন্তু ধরুন, আপনার সাইটে অ্যামেরিকা থেকেও ভালো ভিজিটর আসে, এশিয়া থেকেও ভালো ভিজিটর আসে, আবার রাশিয়া থেকেও ভালো ভিজিটর আসে, তাহলে আপনি কি করবেন? —বন্ধু, এখানেই প্রয়োজনীয় হয়ে পড়ে কনটেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্কবা সিডিএন এর।

যখন আপনি আপনার সাইট কোন সিডিএন নেটওয়ার্কের সাথে যুক্ত করে দেন, সেই নেটওয়ার্ক আপনার সাইটের ক্যাশ কপি কালেক্ট করে, আর পৃথিবীর বিভিন্ন স্থানে থাকা সিডিএন সার্ভারে সেগুলোকে জমা করে রাখে।

এখন যদি কোন এশিয়ান ভিজিটর আপনার সাইট ভিজিট করতে চান, সেক্ষেত্রে তাকে এশিয়ায় অবস্থিত সিডিএন সার্ভার থেকে পেজ শো করানো হয়, অ্যামেরিকান ভিজিটরকে অ্যামেরিকান সার্ভার থেকে পেজ শো করা হয়। এভাবে যে লোকেশনের ভিজিটর তাকে সেই লোকেশন থেকেই পেজ সার্ভ করানো হয়, ফলে সাইট লোডিং অনেক ফাস্ট হয়ে যায়। ব্যাস, সিডিএন সম্পর্কে এইটুকু জ্ঞানই যথেষ্ট!

ফুল সিডিএন সলিউশনের জন্য আপনাকে সার্ভিস কিনতে হবে। তবে ক্লাউডফ্লেয়ারের ফ্রি সিডিএন ইউজ করেও আপনি কাজ চালাতে পারবেন। আমাদের ওয়েব হোস্টিং সম্পূর্ণই ক্লাউডফ্লেয়ার রেডি! তাই সহজেই ক্লাউডফ্লেয়ার সেটআপ করতে পারবেন। আর হ্যাঁ, ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেসে আমারা নিজেরায় আপনার হয়ে ক্লাউডফ্লেয়ার সেট করে দেবো!

যারা আলাদা হোস্টিং ইউজ করেন, তারা হোস্টিং প্রভাইডারের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন বা নিজে থেকেই ফ্রি বা পেইড সিডিএন যুক্ত করতে পারেন সাইটের সাথে!

সঠিকভাবে ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট গ্রহণ পদ্ধতি!

একবার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের ক্যাশিং এনাবল করা হলে এবং সিডিএন সেটআপ শেষ হলে এবার পালা আসবে সঠিকভাবে ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট গ্রহনের। এখন ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট করার জন্য অনেক টুল রয়েছে, নিচে অনেক টুলের লিস্ট দেওয়া হলো, এখন মনে করুন আপনি Pingdom — টুলটি ইউজ করে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের স্পিড পরীক্ষা করবেন!

স্পিড টেস্ট করার সময় লোকেশন ম্যাটার করে!

উপরে সিডিএন নিয়ে আলোচনা করার সময় বুঝালাম যে কিভাবে সার্ভার লোকেশনের উপরে সাইটের স্পিড নির্ভর করে। প্রায় বেশিরভাগ ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট টুল গুলোই নানান লোকেশন থেকে স্পিড টেস্ট করার সুবিধা প্রদান করে। আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটটি যে লোকেশনের ডাটা সেন্টারে হোস্ট থাকবে সেই লোকেশন থেকে আপনার সাইট দ্রুত আক্সেস করা যাবে।

এক্সেলনোড ওয়েব হোস্টিং একসাথে অনেক লোকেশন অফার করে, তাছাড়া আমরা বাংলাদেশী লোকেশন ভিত্তিক সার্ভার ও ব্যবহার করি, ফলে বাংলাদেশী ভিজিটর টার্গেট করা ওয়েবসাইট গুলো অনেক ফাস্ট লোডিং করতে সক্ষম হতে পারে।

ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট করার সময় আপনার হোস্টেড ডাটা সেন্টারের কাছের লোকেশন থেকে এবং দূরের লোকেশন উভয় থেকেই স্পিড টেস্ট করতে হবে। এতে সহজেই বুঝতে পারবেন, আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের জন্য সিডিএন এর গুরুত্ব কতোটুকু! আরো ভালো ধারণা পাওয়ার জন্য সিডিএন কিছুক্ষণের জন্য ডিসেবল করেও স্পিড টেস্ট করতে পারেন, এতে সহজেই বুঝতে পারবেন সিডিএন থেকে আপনার কতোটুকু লাভ হচ্ছে।

আপনাকে একাধিক বার টেস্ট গ্রহণ করতে হবে

এই আর্টিকেলে আমি ক্যাশিং এবং সিডিএন নিয়ে খুব গভিরে আলোচনা করতে যাবো না। তবে আপনাকে মনে রাখতে হবে আপনার ওয়েবসাইটটি কিন্তু এই দুইটি জিনিষই ফাস্ট তৈরি করবে। সমস্যা হচ্ছে অনেক ইউজার কেবল একবারই তাদের সাইটের স্পিড টেস্ট গ্রহণ করে। একবার টেস্টে আপনার সাইট কন্টেন্ট এখনো ক্যাশ তৈরি করতে পারে না, এতে সাইট লোডিং টাইম স্লো প্রদর্শিত করতে পারে।

এখন কিভাবে বুঝবেন যে আপনার সাইটটি ক্যাশ থেকে লোড হচ্ছে কিনা? খুব সহজেই এটা বুঝতে পারা সম্ভব। স্পিড টেস্ট টুল গুলোর HTTP হেডার থেকেই এই তথ্য জানতে পারবেন।

আমাদের এই এক্সেলনোড ব্লগ লাইট স্পিড সার্ভারে হোস্ট করা রয়েছে সাথে লাইট স্পিড ক্যাশিং এনাবল করা রয়েছে। প্রথমবারে পিংডমে স্পিড টেস্ট করার পরে নিচের পারফর্মেন্সটি পেয়েছি!

কিন্তু হেডার রিকোয়েস্ট চেক করলে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে, একটি হেডার যার নাম “x-litespeed-cache” — এর রেসপন্স “MISS” দেখাচ্ছে, এর মানে এক্সেলনোড ব্লগটি ক্যাশ থেকে সার্ভ হয়নি। সঠিকভাবে ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট রেজাল্ট পেতে অবশ্যই আপনার সাইট ক্যাশ থেকে লোড হতে হবে। এর জন্য কয়েকবার স্পিড টেস্ট চালাতে হবে এবং হেডার রিকোয়েস্ট চেক করতে হবে।

পিংডম সহ নানান ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট টুলে স্পিড টেস্ট করার একটি লিমিট রয়েছে। বারবার স্পিড টেস্ট পারফর্ম করলে আপনাকে লিমিটেড করে দেওয়া হতে পারে। তখন কিছু সময় পরে আবার ট্রায় করতে হবে।

একবার আপনার “x-litespeed-cache” হেডারটির রেসপন্স “HIT” দেখালে বুঝে নেবেন ক্যাশ থেকে সাইট লোড হয়েছে। এটা কেন এতো গুরুত্বপূর্ণ? কেনোনা ক্যাশ ছাড়া আপনার সাইট স্লো লোড হয় , ক্যাশ থেকে লোড হলে ৫০% বেশি স্পিড পাওয়া যেতে পারে! ক্যাশ হিট করার পরে এক্সেলনোড ব্লগের লোডিং টাইম লক্ষ্য করলেই ব্যাপারটি পরিষ্কার হতে পারবেন!

এখন সব রিসোর্সই কিন্তু আপনার সাইট থেকে লোড হয় না। অনেক এক্সটারনাল লিংক থেকে অনেক রিসোর্স লোড হয়, সেগুলো আপনার সাইটের স্পিড কমিয়ে দিতে পারে। যেমন ফেসবুক, টিউটার, গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাডস ইত্যাদি আলাদা লিংক থেকে লোড হয়। এ এক আরেক আর্টিকেলে আলোচনা করবো, কিভাবে এক্সটারনাল লিংক ট্রাবলশুট করবেন। তাছাড়া স্পিড টেস্ট টুলে বেস্ট স্কোর করার ও টিউটোরিয়াল নিয়ে আসছি অনেক দ্রুত!

ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট করার সেরা কিছু টুলস! (২০১৯)

এবার সময় চলে এসেছে নানান টুলস গুলো পরীক্ষা করে দেখা, এতে মোটামুটি একটি ধারণা করতে পারবেন আপনার সাইটে ঠিক কোন কোন পরিবর্তন আনতে হবে। যতো ফাস্ট লোডিং টাইম ততোই বেশি ভালো। সাইটে ক্যাশিং এনাবল করা থাকলে নিজে চোখেই পার্থক্যটা বুঝতে পারবেন।

এই লিস্টে থাকা প্রত্যেকটি ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট টুলের কিছু না কিছু ইউনিক ব্যাপার-সাপার রয়েছে। আমি বলবো সকল টুলস গুলোই ইউজ করুন, তারপরে কার ফিচার গুলো বেশি উপযুক্ত মনে হচ্ছে সেই টুল ইউজ করুন!


আপনার বর্তমান ওয়েব হোস্টিং থেকে আপনার ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট করুন তারপরে এক্সেলনোড ওয়েব হোস্টিং মুভ করলে আবার নতুন করে স্পিড টেস্ট করুন, এতে সহজেই স্পিড পার্থক্য বুঝে যেতে পারবেন। সফল ওয়েবসাইট তৈরি করতে চাইলে অবশ্যই সেটা ফাস্ট হওয়া আবশ্যক!

আপনার কোন স্পিড টেস্ট টুলটি বেশি পছন্দের? আমাদের নিচে কমেন্ট করে জানিয়ে দিন!


এই আর্টিকেলটি ভালো লেগেছে? তাহলে আমাদের এক্সেলনোড ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং প্যাকের ও আপনি প্রেমে পরতে বাধ্য! আমাদের ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং সাধারণ হোস্টিং থেকে ১০ গুন বেশি ফাস্ট! সাথে আমাদের ২৪/৭ সাপোর্ট তো থাকছেই! সেরা বাংলা ব্লগে প্রকাশিত আমাদের সম্পূর্ণ রিভিউটি এখানে পড়তে পারেন এবং এখান থেকে আমাদের হোস্টিং প্ল্যান চেক করতে পারেন!

Feature Image: gettyimages.com

এক্সেলনোড প্রো টিপস গুলো ইনবক্সে পেতে ভুলবেন না!

About the Author: ExelNode

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রিমিয়াম ওয়েব হোস্টিং জিতুন ফ্রিতে!

প্রিমিয়াম ওয়েব হোস্টিং জিতুন ফ্রিতে!

আপনার ইমেইল অ্যাড্রেস প্রবেশ করিয়ে ১ বছর পর্যন্ত ফ্রি ওয়েব হোস্টিং জিতে নিন!

আপনি সফলভাবে সাবস্ক্রাইব করেছেন!