বেশিরভাগ সময় ওয়েবসাইট ডাউন থাকছে? কিভাবে রক্ষা পাবেন?

বেশিরভাগ সময় ওয়েবসাইট ডাউন থাকছে? কিভাবে রক্ষা পাবেন?

আপনার ওয়েবসাইটটি আপনার ব্র্যান্ডের ফেস, আপনার সম্পূর্ণ ব্র্যান্ডকে রিপ্রেজেন্ট করে আপনার ওয়েবসাইট। যেখানে ১ সেকেন্ডের ও বেশি লোডিং টাইম সেলস এর দিকে খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে, সেক্ষেত্রে ওয়েবসাইট ডাউন থাকলে বা স্লো কাজ করলে কতোটা বিজনেসের ক্ষতি হতে পারে, সেটা কল্পনার বাহিরে!

ওয়েসাইট ডাউন থাকা বা স্লো লোডিং সাইট হলে আপনার বিজনেস এমনিতেই টাটা গুড বাই হয়ে যাবে। যারা নতুন ভিজিটর তারা তো আপনার সাইট আর ভিজিট করবেই না, ট্যাব কেটে বের হয়ে আসবে, এমনকি পুরাতন কাস্টমার ও বিকল্প সাইট খোঁজা শুরু করবে, তো বুঝতেই পারছেন ওয়েবসাইট ডাউন থাকা আপনার বিজনেস ও ব্র্যান্ডের জন্য কতোটা ঝুকির হতে পারে!

আজকের এই আর্টিকেলে আলোচনা করবো, কেন ওয়েবসাইট ডাউন টাইম আপনার বিজনেসের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর, কেন আপনার ওয়েবসাইট ডাউন থাকতে পারে, ওয়েবসাইট ডাউন থাকার অসুবিধা থেকে কিভাবে বেঁচে বেরিয়ে আসবেন?


ওয়েবসাইট ডাউন টাইম থেকে ক্ষতি

আপনার ব্র্যান্ড বা বিজনেস ওয়েবসাইটটি যদি বেশিরভাগ সময়ই ডাউন থাকে, সেক্ষেত্রে আপনাকে নানান টাইপের সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। প্রথমত, আপনার নতুন ভিজিটরের আছে আপনার প্রিমিয়াম সার্ভিস কোয়ালিটি নষ্ট হবে। একজন ভিজিটর অনেক সময় আপনার ওয়েবসাইট দেখেই ইমপ্রেস হয়, যদি আপনার সাইট স্লো লোড হয়, কিংবা পুরাপুরি ডাউনই থাকে, তো চিন্তা করুন আপনার ব্যান্ডের ফার্স্ট ইম্প্রেশন কোথায় যাবে?

আপনার সাইট যদি ডাউন থাকে বা পেজ লোডিং অনেক স্লো হয়, সেক্ষেত্রে গুগল আপনার সাইট সাইট ক্রোল করতে লিমিট বেঁধে দেবে। সার্চ ইঞ্জিনে আপনি ভালো র‍্যাঙ্ক করতে পারবেন না। কেনোনা ফাস্ট লোডিং ওয়েবসাইটকে গুগল সার্চ এ প্রধান্য দিয়ে থাকে। এসইও এর ক্ষেত্রে আপনার সাইট নানান দিক থেকে প্রভাবিত হবেই। বেশিসময় ধরে ডাউন টাইম এর ফলে আপনার সাইট থেকে সমস্ত অরগানিক ট্র্যাফিক গুলোকে হাওয়া করে ফেলতে পারে!

কার্বোনাইট ব্লগ পোস্ট অনুসারে, ছোট বিজনেসে ডাউন টাইম মোটামুটি $137 থেকে $427 প্রত্যেক মিনিটের লস প্রদান করতে পারে। বিভিন্য স্টাডি একত্র করে জানা গেছে বড় সাইট গুলো ও বড় কোম্পানি গুলোকে সাইট ডাউনের জন্য প্রত্যেক মিনিটে প্রায় $5,600 এর মতো লস গুনতে হয়। আর অ্যাজামন ১ সেকেন্ডের ডাউন টাইমে $220,000 ডলারের উপরে লস গোনে! — তো ব্যাপারটা এবার আপনি নিজেই চিন্তা করে দেখুন!

ওয়েবসাইট ডাউন থাকার কারণ

এই প্রশ্নের উত্তর এক কথায় পাওয়া যাবে না, নানান কারণে আপনার ওয়েবসাইট ডাউন বা স্লো হয়ে যেতে পারে। আমি বেস্ট কিছু কারণ নিচে উলেক্ষ করলাম, বেশিরভাগ সময় এই কারণ গুলোর জন্যই ওয়েবসাইটকে ডাউন টাইম এক্সপেরিয়েন্স করতে হয়।

লো কোয়ালিটি হোস্টিং

আপনার ওয়েবসাইট ডাউন থাকার অন্যতম কারণটি হচ্ছে লো কোয়ালিটি ওয়েব হোস্টিং ব্যবহার করা। বিশেষ করে কম দামে অনেক দেশী বিদেশি কোম্পানি শেয়ারড হোস্টিং প্রভাইড করে থাকে, এরা মূলত সি-প্যানেল নির্ভর শেয়ারড হোস্টিং প্রদান করে যেটার মাসিক চার্জ ১০০ টাকা থেকে ৫০০ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। বড় বড় ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি যেমন- নেমচিপ, ব্লুহোস্ট, হোস্টগেটর ইত্যাদি কোম্পানির শেয়ারড হোস্টিং গুলো মানুষ চোখ বন্ধ করে কেনে ফেলে।

কিন্তু সমস্যা হচ্ছে, “শেয়ারড হোস্টিং” — এর নাম থেকেই বুঝা যাচ্ছে এটা কতোটা ভালো পারফর্মেন্স প্রদান করবে। উপরের উল্লেখিত কোম্পানি গুলো সাথে আরো অনেক নামী কোম্পানি তাদের সার্ভারে হাজারো ওয়েবসাইট হোস্ট করিয়ে পানির মতো দামে শেয়ারড হোস্টিং সেল করে, যেটা হয়তো আপনি জানেনই না। আপনার সার্ভারে শুধু আপনি একা নন বরং সাথে রয়েছে আরো ৫০০+ জনগনের সাইট। তো ব্যাপারটা ঠাণ্ডা মাথায় একটু নিজেই চিন্তা করে দেখুন এবার!

আপনার সেম সার্ভারে হোস্ট থাকা যেকোনো আলাদা সাইটের কোন সমস্যা হলেই আপনার সাইট ডাউন বা সাইটের পারফর্মেন্স খারাপ হয়ে যেতে পারে। শেয়ারড হোস্টিং গুলোকে খরচ কমানোর উদ্দেশ্যে ডিজাইন করা হয়, পারফর্মেন্স এর জন্য ডিজাইন করা হয় না।

আপনি হয়তো বলবেন, “এক্সেলনোড ও তো সস্তা শেয়ারড হোস্টিং সেল করে থাকে, তাহলে আপনারা অন্যের বদনাম করছেন কেন?” — ওয়েল, আমরা কিন্তু আমাদের শেয়ারড হোস্টিংকে অ্যাল্ট্রা প্রিমিয়াম বলে মার্কেটিং করি না। আমরা এক সার্ভারে ওয়েবসাইট ওভারলোড করি না। আমরা আপনার বিজনেস সাইট শেয়ারড হোস্টিং এ হোস্ট করতে রেকোমেন্ড করিনা। আরো অনেক ইউনিক ফিচার রয়েছে আমাদের যেগুলো জন্য আলাদা কোম্পানি গুলো থেকে আমাদের পার্থক্য করে! এখানে আমাদের ফুল রিভিউটি চেক করতে পারেন।

হিউজ ট্র্যাফিক

হিউজ ট্র্যাফিক কে না পছন্দ করে বলুন, বাট বেশি পরিমাণে ট্র্যাফিক আপনার ওয়েবসাইটে ৫০০ এরর বা আরো খারাপ এরর গুলো তৈরি করতে পারে। আমাদের ভিপিএস হোস্টিং এবং ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং বিশেষ করে পারফর্মেন্স এর জন্য ডিজাইন করা, এতে হাজারো রিয়াল টাইম ট্র্যাফিক একসাথে হ্যান্ডেল করতে পারবেন!

অনেক শেয়ারড হোস্টিং কোম্পানি আপনার ওয়েবসাইটে লিমিট সেট করে দেয়, সার্ভার প্রসেস, সিপিইউ ইউজেস, র‍্যাম ইউজেস, ডাটাবেজ আক্সেস — ইত্যাদি সবকিছুতেই লিমিট বাধানো থাকে। যখন আপনার সাইটে হঠাৎ করে বেশি ট্র্যাফিক আসতে লাগবে, আপনার সাইট তারা ইচ্ছা করে ডাউন করে দেবে অথবা আপনার হোস্টিং অ্যাকাউন্ট সাস্পেন্ড করে দেবে, যাতে সার্ভারে হোস্ট থাকা বাকি ওয়েবসাইট গুলো বেঁচে থাকতে পারে!

আমরা মিথ্যা বলবো না যে শেয়ারড হোস্টিং এ আমরা আপনার ওয়েবসাইটে কোন কিছুই লিমিট করি না। শেয়ারড হোস্টিং এ বাকি ওয়েবসাইট গুলো পারফর্মেন্স ঠিক রাখতে কিছু লিমিট তো করতেই হয়, তবে আমাদের সার্ভার অবকাঠামো একটু আলাদা স্টাইলে তৈরি করা। খুব টেকনিক্যাল দিক নিয়ে আলোচনা করবো না, বাট কোন এক সিঙ্গেল সার্ভারে সাইট না হোস্ট করে আমরা সার্ভারের এক নেটওয়ার্ক তৈরি করে কাজ করি, এতে আমাদের শেয়ারড সার্ভার গুলোর লোড ব্যালেন্স হয়ে যায়।

তারপরেও বলবো, শেয়ারড হোস্টিং কে কখনোই ভিপিএস হোস্টিং বা ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং এর সাথে তুলনা করা যাবে না। তবে মার্কেটে লো কোয়ালিটি শেয়ারড হোস্টিং প্রভাইডারদের থেকে আমরা বেশি কিছু প্রদান করে থাকি।

এক্সেলনোড কখনোই চাইবে না আপনার ওয়েবসাইট ডাউন থাকুক আর আপনি বিজনেসে মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হোন। আমরা জানি, আমাদের অনেক ক্লায়েন্টের ওয়েবসাইট তাদের ইনকামের প্রধান উৎস, সুতরাং ব্যাপারটিকে আমরা মারাত্মক প্রধান্যর সাথেই দেখার চেষ্টা করি। আপনি কোন প্ল্যান পারচেজ করেছেন সেটা ব্যাপার নয়, আপনার সাইটের সমস্যা হওয়া আর আমাদের জ্ঞানে ব্যাপারটি চলে আসার সাথে সাথে আমরা তদন্দ করতে শুরু করি।

আমরা শেয়ারড হোস্টিং এর ক্ষেত্রে ও খুব বেশি লিমিটেশন রাখি না, সাথে আমাদের সার্ভার গুলো লাইট স্পিড এন্টারপ্রাইজে রান করে, সাথে ওয়ার্ডপ্রেসে লাইট স্পিড ক্যাশ বিল্ডইন ভাবে থাকে। এর ফলে বেশিরভাগ রিকোয়েস্ট ক্যাশ ভার্সন থেকে সার্ভ করা হয়, এতে সার্ভারের উপর থেকে হিউজ লোড কমে যায়।

আপনি কারেন্ট কোন প্ল্যান ইউজ করছেন, সেই অনুসারে আপনার সাইট কতোটা ট্র্যাফিক নিতে পারবে তার একটা লিমিট অবশ্যই রয়েছে। আর আপনার সাইটের ট্র্যাফিক এর উপরে ভিত্তি করেই আপনার বেস্ট প্ল্যানটি চয়েজ করা উচিৎ, তবে চিন্তার কিছু নেই, আমরা আপনার বেস্ট প্ল্যানটি খুঁজে পেতে সাহায্য করবো!

হ্যাকিং বা ম্যালওয়্যার অ্যাটাক

হঠাৎ আপনার সাইটে অনেক ট্র্যাফিক আসতে শুরু করেছে এর মানেই কিন্তু এটা নয় আপনার সাইট ভাইরাল হয়ে গেছে। ইন্টারনেটে অনেক খারাপ বট ও ম্যালিসিয়াস ট্র্যাফিক রয়েছে, যেগুলো আপনার সাইটের নানান ক্ষতি করার চেষ্টা করে সর্বদা।

ডিডস অ্যাটাক বা ডিস্ট্রিবিউটেড ডিনায়াল অফ সার্ভিস অ্যাটাক সময়েই আপনার ওয়েবসাইট ডাউন করে দিতে পারে। ওয়ার্ডপ্রেস সিকিউরিটি প্র্যাকটিস গুলো অত্যন্ত প্রয়োজনীয়, এতে ম্যালিসিয়াস অ্যাটাক গুলো থেকে রক্ষা পেতে পারবেন। নিয়মিত প্লাগিন গুলোকে আপডেট রাখা, লেটেস্ট পিএইচপি ভার্সন ব্যবহার করা, লেটেস্ট ওয়ার্ডপ্রেস ইউজ করার মাধ্যমে অনেক হ্যাক অ্যাটাক থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। শীঘ্রই বেস্ট ওয়ার্ডপ্রেস সিকিউরিটি প্র্যাকটিস গুলো নিয়ে বিস্তারিত আর্টিকেল আসছে!

এক্সেলনোডে অনেক বেসিক সিকিউরিটি ফাংশন গুলো আগে থেকেই রয়েছে। আমরা বেসিক ডিডস প্রোটেকশন, ফেক লগইন করার সময় স্বয়ংক্রিয় আইপি ব্যান হয়ে যাওয়ার সুবিধা, অ্যাডভান্স লেভেলের ফায়ারওয়াল প্রোটেকশন ইত্যাদি আরো অনেক সিকিউরিটি ফিচার প্রদান করে থাকি। এতে আপনার সাইট হয়তো সম্পূর্ণ হ্যাক প্রুফ হবে না, কিন্তু হ্যাকারের কাজ অনেক বেশি কঠিন করে তুলবে নিশ্চয়!

তারপরে যদি আপনার সাইট হ্যাক হয়ে যায়, আমরা ফ্রিতে ফিক্স করে দেবো! আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করেন, আমি হাইলি রেকমেন্ড করবো আমাদের ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং প্ল্যান গ্রহণ করতে।

সাথে আমি রেকোমেন্ড করবো বেস্ট ফায়ারওয়াল প্রোটেকশন যেমন- Sucuri এবং Cloudflare ইউজ করতে সাথে ওয়ার্ডপ্রেস বেস্ট সিকিউরিটি প্লাগিন Wordfence ব্যবহার করতে হাইলি রেকোমেন্ড করবো।

প্লাগইন ও থিম জনিত সমস্যা

ওয়ার্ডপ্রেসের সবচাইতে বড় ব্যাপারটি হচ্ছে, সহজেই হাজারো থিম আর প্লাগিন খুঁজে পাওয়া যায়, তবে এটাই আবার ওয়ার্ডপ্রেসের আরেক অসুবিধার কারণ ও বলতে পারেন। আপনি যে থিম বা প্লাগইনটি ইউজ করছেন সেটা অবশ্যই আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ভার্সন আর ওয়েব সার্ভারের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হতে হবে!

আমি দ্রুতই বেস্ট ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন গুলো নিয়ে একটি আর্টিকেল পাবলিশ করবো, বিশেষ করে যদি আপনি নতুন ইউজার হয়ে থাকেন, সেই আর্টিকেল আপনার বেশ কাজে আসবে।

তবে এখানে আরেকটি ব্যাপার ও রয়েছে, আপনার প্লাগিন যতোই বেস্ট হোক না কেন, একটি ত্রুটি যুক্ত আপডেট আপনার সাইটকে ক্রাশ করে ফেলতে পারে। হয় ৫০০ সার্ভার এরর শো করতে শুরু করবে কিংবা সাইট হোয়াইট স্ক্রীন অফ ডেথ সমস্যায় পরে যাবে! তাই নিয়মিত ব্যাকআপ রাখা এবং প্রত্যেকবার সাইটে পরিবর্তন আনার পরে নিজে থেকে চেক করা আদর্শ প্রমাণিত হতে পারে।

ওয়েবসাইট ডাউন টাইম থেকে কিভাবে রক্ষা পাবেন?

তো অলরেডি ওয়েবসাইট ডাউন টাইম নিয়ে আমরা অনেক কিছু জানতে পারলাম। ওয়েবসাইট ডাউন থাকার ক্ষতি আর কি কি কারণে সাইট ডাউন থাকতে পারে এই ব্যাপার গুলো বেসিক ধারণা এখন রয়েছে আমাদের কাছে। কিন্তু এখন প্রশ্ন হচ্ছে, সাইট ডাউন টাইম সমস্যা থেকে কিভাবে রক্ষা পাওয়া যেতে পারে? চলুন, এবার এই ব্যাপারে আলোচনা করা যাক…

বিশ্বস্ত ওয়েব হোস্টিং নির্বাচন করুন

যেমনটা আগেই বলেছি, লো কোয়ালিটি ওয়েব হোস্টিং গুলো আপনার সাইট ডাউন থাকায় প্রধান কালপ্রিট হিসেবে কাজ করে। আপনি এক্কেবারে নতুন হলে এই বিষয় আলাদা, তখন শেয়ারড হোস্টিং ট্রায় করতে পারেন, কিন্তু আপনার বিজনেস ওয়েবসাইটের জন্য শেয়ারড হোস্টিং চলবেই না, ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং ব্যবহার করতে আমি হাইলি রেকোমেন্ড করবো।

ভালো হোস্টিং বলতে তাদের সার্ভার কতোটা ভালো শুধু এটাই কিন্তু মাত্র চিন্তার জিনিষ নয়, তাদের টেকনিক্যাল সাপোর্ট কিন্তু রিয়াল প্যারা তৈরি করতে পারে। সমস্যা সৃষ্টি হতেই পারে, কিন্তু বেস্ট হোস্টিং কোম্পানি গুলো অনেক দ্রুত সাপোর্ট প্রদানে ফেমাস হয়ে থাকে।

আমাদের ক্লাস্টার নির্ভর পরিকাঠামো এবং লোড ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম এর ফলে সার্ভার গুলো সুপার ফাস্ট পারফর্মেন্স প্রদান করে। সাথে আমাদের টেকনিক্যাল টিম ২৪/৭ সাপোর্ট দেওয়ার জন্য সর্বদা প্রস্তুত! আপনি ওয়েব চ্যাট, লাইভ ফোন সাপোর্ট, সাপোর্ট টিকিট সিস্টেম ইত্যাদি নানান চ্যানেলে এক্সেলনোড থেকে সাপোর্ট পেতে পারবেন। আরো বিস্তারিত এখানে দেখুন…

আমাদের প্রিমিয়াম ভিপিএস হোস্টিং এর ক্ষেত্রে আমরা সার্ভিস লেভেল এগ্রিমেন্টের সাথে ১০০% আপ-টাইম গ্যারান্টি প্রদান করে থাকি। আপনার বিজনেস নিয়ে আপনি যেমন সিরিয়াস, ঠিক আমরাও তেমন, আপনার সাইট ডাউন থাকলে আমরা টাকা ফেরত দেবো!

ওয়েবসাইট ডাউন টাইম মনিটর

আপনি নিশ্চয় সারাক্ষণ আপনার সাইট রিলোড লাগিয়ে বসে থাকবেন না যে আপনার সাইট ডাউন হচ্ছে কখন! অনেক আপ টাইম মনিটর টুল রয়েছে, এদের মধ্যে অনেকেই ফ্রি আবার অনেকেই প্রিমিয়াম। এই টুল গুলো আপনার সাইট ডাউন পেলেই আপনাকে অ্যালার্ট সেন্ড করবে। আপনি সহজেই তার পরবর্তী পদক্ষেপ নিতে পারবেন। নিচের লিস্টটি আপনাকে হেল্প করতে পারে;

সাইট ডাউন আর ওয়ার্ডপ্রেস সমস্যায় ভুগছেন? এক্সেলনোড ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং ট্রায় করে দেখুন!

সোশ্যাল মিডিয়াতে অ্যাক্টিভ থাকুন

একটি ওয়েবসাইট ডাউন থাকার কারণ গুলো পড়ে নিশ্চয় বুঝে গেছেন, একটি সাইট নানান কারণে ডাউন থাকতে পারে, অনেক সময় অজানা কোন কারনেও সাইট ডাউন হয়ে যেতে পারে। যখন আপনার ভিজিটর আপনার সাইট ডাউন পায় সে কিন্তু সর্ব প্রথম সোশ্যাল মিডিয়া চেক করে কোন আপডেট পাওয়ার জন্য।

এক্ষেত্রে আপনাকে একজন ভালো সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করতে হবে। আপনার সাইট ডাউন থাকার কারণ বর্ণনা করতে পারেন, খুব দ্রুতই আপনার সার্ভিস ফিরে আসবে এই ব্যাপারে পোস্ট তৈরি করতে পারেন। আপনাকে যেভাবেই হোক কাস্টমারদের ম্যানেজ করতেই হবে।

আরেকটি ভালো পদ্ধতি হচ্ছে, অনাকাঙ্ক্ষিত ডাউন টাইমের জন্য কাস্টমারদের কাছে মাফ চেয়ে একটি পোস্ট করা! যেটাই করেন, আমি বলবো আপনার কাস্টমার ও ভিজিটরদের সাথে আপনার সাইট ডাউন টাইম নিয়ে ট্রান্সপারেন্ট থাকেন, এতে আপানার অসুবিধা দ্রুত কেটে যাবে পাশাপাশি বিশ্বাস ও অটুট থাকবে!

নিয়মিত ব্যাকআপ রাখুন

আপনি সবকিছু ঠিক রাখার পরেও ডাউন টাইমের শিকার হতে পারেন, এটা অসম্ভব কিছু নয়। তাই বেস্ট পদ্ধতি হচ্ছে টাইম টু টাইম আপনার সাইটের ব্যাকআপ রাখা। ওয়ার্ডপ্রেস সাইট ব্যাকআপ রাখার জন্য অনেক ফ্রি প্লাগিন পাওয়া যায়। আপনি গুগল ড্রাইভ বা ড্রপবক্সে আপনার সাইটের নিয়মিত ব্যাকআপ রাখতে পারেন।

পাশাপাশি এক্সেলনোডের বিভিন্য প্ল্যানে ফ্রি ব্যাকআপ সুবিধা রয়েছে, ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের জন্য আমাদের স্বয়ংক্রিয় ব্যাকআপ তো রয়েছেই। পাশাপাশি ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন গুলো আপনার কাজ হালকা করতে পারে!


এক দিক থেকে দেখতে গেলে ওয়েবসাইট ডাউন টাইম অনিবার্য একটি ব্যাপার। আর এর জন্যই পূর্ব প্রস্তুতি রাখা গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। হঠাৎ করে সমস্যা তৈরি হলে জাস্ট প্ল্যান অনুসারে কাজ করুন, আর এই আর্টিকেল থেকে বেসিক ব্যাপার গুলো জানলেন ই! তারপরেও আমার যদি কিছু মিস হয়ে যায় আমাকে নিচে কমেন্ট করে জানাতে পারেন!


এই আর্টিকেলটি ভালো লেগেছে? তাহলে আমাদের এক্সেলনোড ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং প্যাকের ও আপনি প্রেমে পরতে বাধ্য! আমাদের ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং সাধারণ হোস্টিং থেকে ১০ গুন বেশি ফাস্ট! সাথে আমাদের ২৪/৭ সাপোর্ট তো থাকছেই! সেরা বাংলা ব্লগে প্রকাশিত আমাদের সম্পূর্ণ রিভিউটি এখানে পড়তে পারেন এবং এখান থেকে আমাদের হোস্টিং প্ল্যান চেক করতে পারেন!

এক্সেলনোড প্রো টিপস গুলো ইনবক্সে পেতে ভুলবেন না!

About the Author: ExelNode

You May Also Like

1 Comment

  1. সম্পূর্ণ ব্যতিক্রম ধর্মী একটি পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রিমিয়াম ওয়েব হোস্টিং জিতুন ফ্রিতে!

প্রিমিয়াম ওয়েব হোস্টিং জিতুন ফ্রিতে!

আপনার ইমেইল অ্যাড্রেস প্রবেশ করিয়ে ১ বছর পর্যন্ত ফ্রি ওয়েব হোস্টিং জিতে নিন!

আপনি সফলভাবে সাবস্ক্রাইব করেছেন!